আপলোড তারিখ : 2017-12-07
আজো শ্রমিকদের বেতন কমিশন ঘোষণা করা হয়নি: মেনন
আজো শ্রমিকদের বেতন কমিশন ঘোষণা করা হয়নি: মেননকাজী বাবলা,তাজাখবর২৪.কম,পাবনা: বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি, বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এমপি আপসোস করে বলেছেন, দেশের সকল শ্রেণীর কর্মকর্তা-কর্মচারিদের বেতন বৃদ্ধি করলেও আমার দেশের শ্রমিকদের বেতন কমিশন ঘোষণা করা হয়নি। শিল্প সৃষ্টির অবদান কৃষক-শ্রমিকের। অথচ সেই কৃষক-শ্রমিক অবহেলিত। তিনি রুশ বিপ্লবের কথা উল্লেখ করে বলেন, রুশ বিপ্লবের পর ৭০ বছর কৃষক-শ্রমিকরা তাদের ন্যায্য অধিকার ভোগ করেছিল। সকলের মধ্যে সমতা ছিল। ৬ ডিসেম্বর বুধবার রাতে পাবনায় সমাজতন্ত্রী ও রুশ বিপ্লবের শতবর্ষ পালন উপলক্ষ্যে জেলা ওয়ার্কার্স পার্টি আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।
বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন আরো বলেন, দেশের ৩০ লাখ মানুষের রক্তের বিনিময়ে আমাদের দেশ স্বাধীন হয়। আমরা স্বাধীনতার সূর্য দেখতে পেয়েছিলাম। কিন্তু স্বাধীনতার ৩ বছরের মাথায় বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর গণতন্ত্রকে হত্যা করা হয়। তিনি বলেন, স্বাধীনতার সময় আমেরিকার রণতরী যখন বঙ্গপোসাগরের দিকে ধাবিত হয় তখন রুশ ঘোষণা দেয় আমার রণতরীও ভারত মহাসগরে যাবে।  তখন আমেরিকা ফেরত যেতে বাধ্য হয়। আমরা লড়াই করে গণতন্ত্র ফিরিয়ে এনেছি। গণঅভ্যুথানের কাছে স্বৈরাচার পতন হয়ে মানুষের জয় হয়েছিল।  মন্ত্রী বলেন, দেশে আজ শিল্পের সৃষ্টি হচ্ছে। এ শিল্প খেটে খাওয়া মানুষের অবদানেই হচ্ছে। অথচ এই খেটে খাওয়া মানুষের ভাগ্যের কোন পরিবর্তন হচ্ছে না। সব সেক্টরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধি পেয়েছে। অথচ আমার কৃষক-শ্রমিকের বেতন কমিশন ঘোষণা করা হয়নি।
মেনন বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় আমার দেশের তরুণরা অস্ত্র হাতে নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। এক কোটি মানুষ ভারতে আশ্রয় নিয়েছিল। আমেরিকা পাকিস্তানকে অস্ত্র দিয়ে সহযোগিতা করেছিল। এদেশে জামায়াত গোলাম আযম-নিজামীরা শান্তি বাহিনী গঠন করে মুক্তিযুদ্ধের বিরোধীতা করেছিল। এত সত্বেও দেশ স্বাধীন হয়। স্বাধীনতার পর এদেশের সংবিধানের মূলনীতিতে উল্লেখ করা হয়েছিল সমাজতন্ত্র, গণতন্ত্র, সমতাভিত্তিক শাসন ক্ষমতা চলবে। এর পর ৩ বছরের মাথায় জিয়া ক্ষমতায় আসে এবং সংবিধান থেকে সমাজতন্ত্র উঠিয়ে দেয়।
পাবনা শহরের বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম বকুল পৌর মিলনায়তনে (টাউন হল ময়দান) পাবনা জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কমরেড জাকির হোসেনের সভাপতিত্বে সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক ইয়াছিন আলী, ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা দীপংকর মাহাদিপু, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, জেলা জাতীয় কৃষক সমিতির সভাপতি শহিদুল্লাহ, পাবনা জেলা যুবমৈত্রী সভাপতি বকুল হোসেন, জেলা ছাত্র মৈত্রী সভাপতি মমিনুর রহমান, জেলা গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক সুলতান আহমেদ বুড়ো, পাবনা জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি নাছির উদ্দিন, ন্যাপের জেলা সভাপতি রেজাউল করিম মনি, জেলা জাসদ সভাপতি শেখ আনিদুজ্জান, ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা কমরেড সিরাজুল ইসলাম ও কমরেড শরীফ বিশ্বাস প্রমুখ। 




তাজাখবর২৪.কম: ঢাকা বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ২২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪

এই বিভাগের আরো সংবাদ

advertisement

 




                                     সম্পাদক: কায়সার হাসান
                    নির্বাহী সম্পাদক: মো: সাইফুল ইসলাম চৌধূরী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: আর কে ফারুকী নজরুল,সহকারি ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: জাহানারা বেগম,
সহকারি সম্পাদক: জহির হাসান,নগর সম্পাদক: তাজুল ইসলাম।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: মডার্ণ ম্যানশন (১৫ তলা) ৫৩ মতিঝিল বা/এ, ঢাকা-১০০০।
এই ঠিকানা থেকে সম্পাদক কায়সার হাসান কর্তৃক প্রকাশিত।
কপিরাইটর্ ২০১৩: taazakhobor24.com এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
ফোন: ০৮৮-০২-৫৭১৬০৭২০, মোবাইল: ০১৮১৮১২০৯০৮, ০১৯১২৪৬৩৪৭০, ০১৬৭২৩৭৭৬৬৬
ই-মেইল: taazakhobor24@gmail.com, facebook: taaza khobor

সোমবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৭